কবিতা

ভালোবাসার ভিখিরি

খাদ্যের অভাবে হাত পাততে পারি নি।
অর্থকষ্টে ব্যাংক লুট করতে পারি নি।
ভালোবাসার অভাবে আমি বারবার ভিখিরি হয়েছি,
দুয়ারে দুয়ারে পেতেছি রোদনভরা হাত।
যাও যাও, ভিখ নেই, দূর হঠ্ শোনে
প্রচণ্ড আক্রোশে ভালোবাসা লুট করতে গিয়েও
বারবার তবু ভিখিরি হয়েছি।

আমি তো জেনেছি—
জোসনায় স্নান সেরে নিলেই থাকে না রোদের অসুখ
প্রকৃত হত্যার পর আউলিয়া হয় নিজাম ডাকাত

কোনো অভাবেই পথে নামতে পারি নি।
অথচ ভালোবাসার জন্য আমি কুকুরের মতো লেজ নাড়িয়েছি
পথে পথে— দুয়ারে দুয়ারে— প্রভুর সম্মুখে।
যা যা ভাগ্ শোনে তবু সাষ্টাঙ্গ করেছি মনের মন্দিরে,
জিকিরে জিকিরে ফানা করেছি দৈহিক প্রেম।

কে না জানে, মনের ঘা সারলেই আসে বসন্ত শরীরে।

খোলা চিঠি/রাজন্য রুহানি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *